niche select

নিশ রিসার্চ: প্রথম পর্ব

আমরা যারা ইন্টারনেট মার্কেটিং করি আমাদের সবার জন্য “নিশ” শব্দটা খুবই পরিচিত একটা শব্দ । এই নিশ নিয়েই চলে নানা রকম যুদ্ধ এবং জল্পনা কল্পনা । একটা ভালো নিশ খুঁজে পাওয়া, খুঁজে পেলে চিন্তায় নামতে হয় যে এইটা ঠিক আছে কি না, কাজ করা যাবে কি না এই নিশ নিয়ে ইত্যাদি ইত্যাদি । তো যাই হোক, আমার এই লেখাটা নিশ সিলেকশন নিয়ে ।

তো শুরুতেই বলে নিই নিশ কি ? (অভিজ্ঞরা এই অংশটা স্কিপ করতে পারেন ।)

নিশ নিয়ে আমরা অনেকেই অনেক কিছু ইতিমধ্যে জেনেছি । বেশিরভাগই জেনেছি অনলাইন থেকে । অনলাইনে ইনফরমেশন ওভারফ্লো বলে একটা কথা আছে । কোন কিছু নিয়ে সার্চ দিলে এত এত ইনফরমেশন পাওয়া যায় যে কোনটা রেখে কোনটা পড়বো এইটা ঠিক করতে করতেই একটা কনফিউশন চলে আসে । এর উপর কোন কিছু নিয়ে পড়তে শুরু করলে পাশ থেকে একজন ভেসে উঠে বলে চলেন ভাই আজকেই আপনাকে ১০০ ডলার ইনকাম করিয়ে দিই, এবং যথারীতি আমরা ওখানে ক্লিক করে ১০০ ডলারের পেছনে দৌড়াতে থাকি । সবগুলো ইনফরমেশন যে ১০০% ঠিক সেটাও না । অনেকে ব্লগিং করার উদ্দেশ্য অনেক লো-ইনফরমেটিভ রিসোর্স শেয়ার করে থাকেন । তো সেই হিস্টরিতে আর নাই যাই ।

অত কিছু জানার দরকার নেই । নিশ হলো একটা নিদৃষ্ট টপিক । যেমন ধরেন মুভি একটা বিগ মার্কেট । এইটার নিশ হলো ক্লাসিকাল মুভি, অ্যাকশন মুভি এইগুলো । অথবা ফুড একটা বিগ মার্কেট । এখন দেখেন বেবি ফুড, ওমেন ফুড, ফুড ফর বডি বিল্ডার এইগুলো নিশ । আর ব্যাপারটা যত বেশি স্পেসিফিক হবে তত ভালো । যেমন বেবি ফুড একটা নিদৃষ্ট নিশ । এইটার আরো স্পেসিফিক টপিক হলো বয়স নির্ধারন করে বলা । যেমন ১ বছরের কম বয়সের বেবিস ফুড । আরো স্পেসিফিক হলো ৩ বছরের বেবির জন্য সলিড ফুড বা তরল ফুড ।


“নিশ নিয়ে প্রচলিত কিছু ধারনা এবং এর সত্যেতা”

# নিশ খুঁজে পাওয়ার মূলমন্ত্র হলো কী-ওয়ার্ড রিসার্চ ।

নাহ । মোটেও না । আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হলো মার্কেট রিসার্চ, কী-ওয়ার্ড রিসার্চ নয় । কী-ওয়ার্ড রিসার্চ আপনাকে কি দিবে? কতজন গুগলে সার্চ করলো বা এই ধরনের কিছু বিষয় । নিশের গুরুত্ব কখনো কী-ওয়ার্ড রিসার্চ দিয়ে বুঝা যায় না । কী-ওয়ার্ড রিসার্চ পর্বে সেটা বিস্তারিত বুঝতে পারবেন ।

 

# আমরা নিশ মার্কেটিং বলতে বুঝি কিছু পেইজ সহ একটা ছোটখাটো ওয়েবসাইট থাকবে এবং যে কোন একটা পন্য নিয়ে রিভিউ করতে থাকবো

ব্যাপার সেটা না । নিশ অথরিটি সাইট হতে পারে । আপনি ৫০০০ পেইজ নিয়ে কাজ করেন না আপনাকে কেউ ধরে রাখছে?

 

# হুম, আমাকে এমন কোন প্রোডাক্ট খুঁজে বের করতে হবে যেটা নিয়ে এখনো কেউ টের পায় নি । তাহলে আমি খুব দ্রুত র‍্যাংক করে ফেলবো । কি মজা !

এই বোকামি করা যাবে না । এমন প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করতে হবে যেটা নিয়ে কেউ না কেউ কাজ করছে, কেউ না কেউ এইটা নিয়ে কথা বলছে । ফোরামে এইটা নিয়ে প্রশ্ন করছে এবং কেউ এইটা নিয়ে উত্তর দিচ্ছে । তাহলে সেটাকে একটা পারফেক্ট নিশ বিবেচনা করা যায় । যেই নিশ নিয়ে কোন কম্পিটিশন নেই সেটা নিয়ে কাজ করলে কিছুদিন পরে আপনাকেই আর খুঁজে পাওয়া যাবে না ।

 

# নিশ নিয়ে সফল হতে হবে, অনেক গুলো নিশ সাইট ওপেন করতে হবে । মোট কথা নিশ সাইটের একটা কারখানা দিয়ে ফেলতে হবে তবেই না নিশ মার্কেটিংয়ে আমি সাকসেস ।

১০০% ভুল সিদ্ধান্ত । কি মনে হয় আপনার, কুট কুট করে বিস্কুট খাবেন আর বসে বসে নিশ ক্রিয়েট করবেন আর খুব দ্রুত বড়লোক হয়ে যাবেন ? আসলে আপনি একজন ঝামেলাপূর্ন মানুষ হয়ে যাবেন । এইসব চিন্তা বাদ দিয়ে নতুন চিন্তা করেন । বড় পরিসরে একটা মাত্র নিশ শুরু করেন । আর যদি নিতান্তই একাধিক নিশ ক্রিয়েট করার ব্যাপারটা মাথায় আসে সেটা করেন । কিন্তু শর্ত হলো আপনার একটা নিশ থেকে অলরেডি ইনকাম হচ্ছে এইটা শিউর হতে হবে ।

 

# আমাকে অবশ্যই গুগলে র‍্যাংক করতে হবে । যে কোন মুল্যই হোক এইটা করতে হবে ।

গুগল কি ? সার্চ ইন্জিন । সে কি সারা জীবন আপনাকে দেখবে ? আচ্ছা আপনার সাইট র‍্যাংক যখন খারাপ হবে তখন কি করবেন ? আপনার ইনকাম তো তাহলে বন্ধ হয়ে যাবে । শুধু মাত্র র‍্যাংকিংয়ের দিকে খেয়াল না রেখে অন্যান্য ভাবে যেন সেল জেনারেট হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে । সোশ্যাল মিডিয়া আছে, ব্লগ, ফোরাম, ভিডিও মার্কেটিং এবং অন্যান্য অনেক ভাবেই সেল জেনারেট করতে হবে । শুধু গুগলে র‍্যাংকের আশায় বসে থাকলে চলবে না ।

 

# অনেক সময় নিয়ে নিশ রিসার্চ করবো তাহলে আর লস হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না ।

কোন কিছুতেই বেশি সময় নেওয়া উচিৎ না । আপনাকে কে বললো সব নিশ ১০০% পারফেক্ট ? আপনি কি মনে করেন যে আপনি ১ মাস সময় নিয়ে নিশ রিসার্চ করবেন আর ১০০% পারফেক্ট একটা নিশ পেয়ে যাবেন ? এমনটি হওয়ার চান্স খুবই কম । শতকরা ১ ভাগ । সময় না নিয়ে নিজের কমন সেন্স এবং আত্ববিশ্বাস নিয়ে শুরু করুন ।


নিশ খুঁজে পাওয়াটা খুবই সহজ একটা কাজ । আমরা অনেকেই টিভিতে বিভিন্ন অনুষ্ঠান দেখি অথবা মুভি দেখি । অথবা অনেক রকম নিউজ আমরা পড়ি । এইগুলোর মধ্যে অনেক অনেক নিশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে । কিভাবে এইগুলো বের করবেন সেটা সামনের পর্ব গুলোতে বলবো । একদম সোজা । আমি আমার প্রথম নিশ পেয়েছিলাম একটা মুভি থেকে । অ্যানিমেশন মুভি আমি খুব পছন্দ করি । ২০১৩ সালে রিলিজ হওয়া Turbo মুভিটা অনেকে দেখেছেন । আমি ওই মুভি থেকে খুঁজে খুঁজে ৭ টা গুরুত্বপুর্ন নিশ বের করেছি । যেমন প্রথম ২০-৩০ মিনিটের মধ্যেই দেখেন একজন বাগানের ঘাস কাটার জন্য একটা লন মাওয়ার নিয়ে আসে । আমি বের করলাম এইটার নাম এবং বেস্ট এড করে সার্চ করলাম । ব্যাস পেয়ে গেলাম একটা চমৎকার নিশ । বেস্ট লন মাওয়ার । একটা পিচ্চি বের হয়ে আসে কি নিয়ে দেখলেন তো ? হ্যা একটা ট্রাইসাইকেল নিয়ে । এবং ট্রাইসাইকেল নিয়ে আমি সার্চ করতে গিয়ে পেলাম ব্যালেন্স বাইক । বেস্ট ব্যালেন্স বাইক এবং বেস্ট ট্রাইসাইকেল । দেখেন একটা মুভি শুরু না হতেই আমাকে ৩টা নিশ দেখিয়ে দিল । এবং প্রত্যেকটা নিশের অবস্থা খুবই ভালো । ওই মুভি থেকে পাওয়া ৭টা নিশের দুইটা নিয়ে আমি কাজ করেছি এবং ফলাফল খুবই চমৎকার । আপনাদের কাজ হলো ওই মুভি আবার দেখবেন এবং আমি না বলা বাকি ৪টা নিশ বের করবেন । কারন ওইগুলো নিয়ে এখনো কাজ করা যাবে । এরপর আছে টিভি প্রোগ্রাম গুলো । ডিসকভারি চ্যানেলে How it’s Made অনুষ্ঠানের ব্যাপক ভক্ত আমি । এখান থেকে যে কত গুলো নিশ বের করা যায় সেটা পরবর্তি সময় মনযোগ দিয়ে অনুষ্ঠান টা দেখলেই বুঝতে পারবেন ।

আজকের মত এখানেই শেষ । পরবর্তি পর্বগুলোতে নিশ নিয়ে আরো কথা হবে । নিশ বের না হয়ে যাবে কোথায় ।

 

About the Author tamanna

Leave a Comment: